Breaking News
Home / লাইফস্টাইল / বিয়ের পর পাত্রকে কানাডা নিয়ে যাওয়া হবে। প্রবাসী,বয়স্ক, ডিভোর্স আপত্তি নেই , সরাসরি যোগাযোগ করুন
Loading...

বিয়ের পর পাত্রকে কানাডা নিয়ে যাওয়া হবে। প্রবাসী,বয়স্ক, ডিভোর্স আপত্তি নেই , সরাসরি যোগাযোগ করুন

কানাডার নারী নাগরিক. কানাডা ব্যবসা. সুন্দরী (35) এবং বিবাহবিচ্ছেদ কারণে বন্ধ্যা.পাত্র মত ধর্মীয় মন. বিয়ের পর বর কানাডা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে. আর সন্তানরা দাড়ি কিছু মনে করবেন না.ageold bridrgroom খুঁজছেন: হাজী, অনুর্বর, বিধবা (40) ছয় তলা উত্তরা ঘর.

bridrgroom- জন্যে আছে বিবাহে কোনো আপত্তি নেই. গুরু অগ্রাধিকার
bridrgroom জন্যে = স্বামী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত. কারখানার মালিক (37) দাম্পত্য ঘর yatrabarite.
সৎ বর খুঁজছেন – একটি ছোট গ্রাম, শিক্ষিত, শিশু স্ত্রী অব্যাহত থাকবে. তাঁর দাড়ি থেকে কোন আপত্তি নেই.
বিয়ের পর বর হজ নিয়ে যাওয়া হবে.

bridrgroom- শিল্পপতি কন্যা জন্যে. সমস্যা ডান হাত, বাঁজা. সুন্দরী (30) পিতা নয়, মা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন.
ব্রাইডাল দায়িত্ব দায়ী নিতে, শুধু পাত্র মত বিনিময় করেছে. সেখানে তার সন্তানদের কোন আপত্তি নেই.
বর স্থাপন করা হবে. শ্মশ্রুধারী রান. ব্রাইডাল মিডিয়া খরচ ..

 

আরও পড়ুনঃ

বিয়ের রাতে মিলন কতটা সুখকর হয় জানেন! জানলে চমকে যাবেন

বিয়ের রাতে মিলন – এখন যদি কেউ আপনাকে বলে যে একটা অজানা, অচেনা লোকের সঙ্গে এক বিছানায় রাত কাটাতে হবে আপনাকে৷ কী অস্বস্তি লাগবে না আপনার? কিন্তু ভাবুন তো শুধু রাত কাটানোই নয়, একটা সময় ছিল যখন এক সম্পূর্ণ অচেনা মানুষের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হত আপনারই বয়সের কোনও মেয়ে বা মহিলাকে৷ সেই সম্পূর্ণ ধাঁধাময় মানুষটির সঙ্গে বিয়ের রাতে মিলিতও হতো তাঁরা৷

কিন্তু বর্তমানে সময় অনেক পালটে গিয়েছে, অ্যারেঞ্জ ম্যারেজের ফাঁদ থেকে মেয়েরা আজ অনেকটাই মুক্ত৷ কিন্তু তবু আজও আমাদের এই সমাজেই অনেক উঁচু-নীচু জাতপাতের বাঁধাধরা ছক আছে যেখানে আজও মনে করা হয় যে, ১৮ বছর মানেই একটি মেয়ের বিয়ের বয়স হয়ে গিয়েছে৷ ফলে দাও তাকে বাপের কাকার বয়সী একজনের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে৷ আর যদি পাত্র সরকারি চাকুরে হয় তবে তো কথাই নেই৷

কিন্ত এই সবকিছুর উর্ধ্বে যে কথাটা বলার জন্য এত ভনিতা৷ তা হল জানেন কী কতজন ভারতীর নবদম্পতি বিয়ের রাতেই মিলিত হন?

সমীক্ষা বলছে ৬৩ শতাংশ ভারতীয় দম্পতি যারা অ্যারেঞ্জ ম্যারেজ করেন তাঁরা বিয়ের রাতেই যৌন সংগমে লিপ্ত হন৷ কিন্তু অবাক হবেন এটা জেনে যে, সেই দম্পতিদের মধ্যে বেশির ভাগই বিয়ের আগে পরস্পরকে চেনেন না৷ কোনও কোনও ক্ষেত্রে বিয়ের মণ্ডপেই হয় প্রথম দেখা৷ তবে ‘বিয়ের প্রথম রাতেই ছক্কা হাঁকানো’ কী ভুল৷ সমীক্ষকরা বলছেন, সবার জন্য অবশ্যই ভুল নয়৷ তবে এটা ভুল হতে পারে দু’ধরনের মানুষদের জন্য, এক যাদের সেক্স সম্পর্কে কোনও প্রকারের ধারনা নেই৷ আর দুই, যারা বিপরীত দিকের মানুষটির কাছে বেশি কিছু এক্সপেক্ট করেন৷

তাঁরা আরও জানিয়েছেন, বিয়েকে কোনও মতেই হালকা ভাবে নেওয়া উচিত নয়৷ কারণ এই প্রক্রিয়াতে আপনি কেবল শারীরিক ভাবেই কোনও একজনের সঙ্গে মিলিত হচ্ছেন না, মানসিক মিলনও ঘটছে৷ শরীর না একটা মাধ্যম মাত্র, যার সঙ্গে যাগ থাকে মনের৷

Loading...